পাইলিং (Piling) কি? যন্ত্রপাতিসহ পাইলিং করার নিয়ম

3
367
পাইলিং (Piling) কি ? কেন করা হয়? পাইলিং (Piling) এর কাজে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির নাম পাইলিং (Piling) করার পুর্বপ্রস্তুতি, নিয়ম ও পদ্ধতি পাইলিং (Piling) এর কাজে বাস্তব সমস্যা ও সমাধান
পাইলিং (Piling) কি যন্ত্রপাতিসহ পাইলিং করার নিয়ম ও পদ্ধতি

পাইলিং (Piling) কি ? 
পাইলিং (Piling) হলো, কাঠামোর ভিত্তি নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় পাইলসমূহ নির্দিষ্ট গভীরতায় মাটির অভ্যন্তরে ঢোকানোর একটি প্রক্রিয়া।

পাইলিং (Piling) কেন করা হয়?
কাঠামোর নিজস্ব ওজন এবং এর উপর আগত বিভিন্ন লোড সমূহ স্থানান্তরের জন্য ভূপৃষ্ঠের কাছাকাছি প্রয়োজনীয় ভারবহন ক্ষমতাসম্পন্ন মাটির স্তর পাওয়া না গেলে, সেক্ষেত্রে পাইলিং (Piling) করা হয়। পাইলের মাধ্যমে মাটির গভীরে, শক্ত স্তরে কাঠামোর লোডসমূহ ছড়িয়ে দেয়া হয়।

পাইলিং (Piling) কি ? কেন করা হয়?
পাইলিং (Piling) এর কাজে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির নাম
পাইলিং (Piling) করার পুর্বপ্রস্তুতি, নিয়ম ও পদ্ধতি
পাইলিং (Piling) এর কাজে বাস্তব সমস্যা ও সমাধান

পাইলিং(Piling)এর কাজে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির নাম
১) রিগ (তে-পায়া/দু-পায়া/এক-পায়া)
২) উইংস মেশিন
৩) চিজেল
৪) কেসিং পাইপ (১২’-০” লম্বা) পাইলের ডায়া অনুযায়ী কেজিং পাইপ দুই/তিন ধরনের প্রয়োজন হতে পারে।
৫) বোরিং পাইপ
৬) ট্রিমি পাইপ
৭) পাইপ রেঞ্জ
৮) ওয়েল্ডিং রড
৯) জেনারেটর
১০) সাকশন পাইপ
১১) বাকেট
১২) মিক্সার মেশিন
১৩) ফানেল
১৪) ওয়্যার
১৫) হ্যামার
১৬) ক্ল্যাম্প (বোরিং ও ট্রিমি পাইপ ধরে রাখার জন্য)
১৭) ওয়েল্ডিং মেশিন
১৮) ওয়্যার ব্রাশ
১৯) ডিজেল
২০) ডেলিভারী পাইপ

পাইলিং (Piling) করার পুর্বপ্রস্তুতি
বিল্ডিংয়ের চূড়ান্ত লে-আউট সম্পন্ন হওয়ার পর পাইলের লে-আউট দিতে হবে। গ্রীড লাইনের রেফারেন্সে কলামের সেন্টার লাইনগুলো ঠিক করতে হবে এবং তার উপর ভিত্তি করে সকল পাইলের পয়েন্ট মার্কিং করতে হবে। টুকরা রড পাইলের সেন্টারে বসিয়ে মাটির ৪ (চার) নীচ পর্যন্ত ঢালাই করে দিতে হবে। যেন তে-পায়া বা রিগ নড়াচড়ার সময় পয়েন্টগুলি নড়েচড়ে না যায়। পাইলের ভিন্ন ভিন্ন ডায়া ও লেন্থ অনুযায়ী ঢালাইয়ের উপর রং করতে হবে। পাইল করার সময় রড ও রং দেখে পাইল পয়েন্ট ও ধরন নির্ণয় করতে হবে। এমনিভাবে ড্রইং মোতাবেক প্রত্যেকটি কলামের জন্য পাইল পয়েন্ট দিতে হবে।


বিল্ডিং লেআউট কি? প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও মালামালসহ লেআউট দেওয়ার নিয়ম।


পাইলিং (Piling) করার নিয়ম ও পদ্ধতি
অধিক সতর্কতার সাথে পাইলিং এর কাজ করতে হবে। যেহেতু মাটির নীচে কাজ, খালি চোখে দেখা যায় না, নিজের অগোচরেই যে কোন সমস্যা দেখা দিতে পারে। সেজন্য পাইলিং এর কাজ করার সময় প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত যে ধাপগুলি অনুসরণ করতে হবে, তা নিম্নে বর্ণনা করা হলোঃ

১) তে-পায়ার সাহায্যে চিজেল, পাইলের সেন্টার পয়েন্টের উপর বসাতে হবে এবং এটি True to Vertical হতে হবে।

২) কাজ শুরু করার পূর্বে সিজেলের পরিমাপ করতে হবে এবং উহা পাইলের Dia এর ১” কম কিনা তা নিশ্চিত করতে হবে।

৩) সিজেলের মাথায় পানি দিয়ে পাইলের সেন্টার পয়েন্ট ঠিক করতে হবে।। উইংস মেশিনের সাহায্যে ৫/৬ ফুট বোরিং করে কেজিং পাইপ লম্বভাবে বসাতে হবে।

৪) কেসিং পাইপের ডায়া পাইলের ডায়ার সমান হবে এবং উহা কাজ শুরু করার পূর্বে পরিমাপ করে নিশ্চিত হতে হবে।

৫) উইংস মেশিনের সাহায্যে চিজেল কেজিং এর মধ্যে বসিয়ে নির্দিষ্ট গভীরতায় বোরিং করতে হবে।

৬) বোরিং শেষ হলে কমপক্ষে আধা ঘন্টা ওয়াশ করতে হবে (যতক্ষণ কাদা পরিস্কার না হয়)। পানি পরিস্কার হয়েছে কিনা হাতে নিয়ে দেখতে হবে।

৭) পাইলের খাঁচা ৩৫’-০” এর বেশী হলে অর্থাৎ ৭০’-০” এর মধ্যে থাকলে একটি পাইলের জন্য দুইটি খাঁচা তৈরী করতে হবে। তদুর্ধ হলে ৩/৪টি খাঁচা হতে পারে। প্রতি দুইটি খাঁচা জয়েন্ট দেয়ার জন্য ডিজাইন অনুযায়ী ল্যাপিং দিতে হবে। ডিজাইনে ল্যাপিং এর পরিমান দেয়া না থাকলে ২৫-৩০ ল্যাপিং দিতে হবে।

পাইলিং (Piling) কি ? কেন করা হয়?
পাইলিং (Piling) এর কাজে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির নাম
পাইলিং (Piling) করার পুর্বপ্রস্তুতি, নিয়ম ও পদ্ধতি
পাইলিং (Piling) এর কাজে বাস্তব সমস্যা ও সমাধান

৮) পাইলের খাঁচা তৈরী করার সময় সার্কুলার ব্লক ৭/৮ ফুট পর পর ৩টি করে দিতে হবে। সার্কুলার ব্লক এর মাপ হবে ক্লিয়ার কভারের দ্বিগুন এবং মাঝখানে ১/২” হোল হবে।

৯) Site এ মাটি ভরাট না করে existing soil এ pilling করাই উত্তম।

১০) Clear cover 2.5″ হলে মোট আউটার Dia 5″ Clear cover 3″ হলে মোট আউটার Dia 6″ হবে।

১১) দুই চেম্বার বিশিষ্ট অস্থায়ী ট্যাংক তৈরী করতে হবে। যার একটিতে পানি ও কাদার মিশ্রণ অপরটিতে অপেক্ষাকৃত পরিস্কার পানি জমা হবে।

১২) Reference level থেকে Cut off level নির্দিষ্ট করতে হবে।

১৩) ওয়াশ শেষে রডের খাঁচা বোরিং এর ভিতর নামাতে হবে এবং রডের Top কোন লেভেলে রাখতে হবে, তাহা ওয়াটার লেভেলের সাহায্যে ঠিক করতে হবে এবং সেই মাপে একটি রড পাইলের খাঁচার রডের সাথে ওয়েল্ডিং করে আটকিয়ে কেসিং পাইপের মাথায় হুক করে আটকাতে হবে এবং অপর একটি রড শুধু হুক করে পাইলের খাঁচা এবং কেজিং পাইপের মাথায় আটকাতে হবে।

পাইলিং (Piling) কি ? কেন করা হয়?
পাইলিং (Piling) এর কাজে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির নাম
পাইলিং (Piling) করার পুর্বপ্রস্তুতি, নিয়ম ও পদ্ধতি
পাইলিং (Piling) এর কাজে বাস্তব সমস্যা ও সমাধান

১৪) ট্রিমি পাইপের সাহায্যে ঢালাই কাজ সম্পন্ন করতে হবে।

পাইলিং (Piling) কি ? কেন করা হয়?
পাইলিং (Piling) এর কাজে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির নাম
পাইলিং (Piling) করার পুর্বপ্রস্তুতি, নিয়ম ও পদ্ধতি
পাইলিং (Piling) এর কাজে বাস্তব সমস্যা ও সমাধান

১৫) ঢালাইয়ের পূর্বে বোরিং এর তলা থেকে ট্রিমি পাইপ ১-০ আছে কিনা তা নিশ্চিত করতে হবে। ঢালাইয়ের পূর্বে ট্রিমি পাইপ বোরিং এর জন্য যথেষ্ট পরিমান আছে কিনা তা দেখে নিতে হবে। ট্রিমি পাইপ কাষ্টিং এর সময় এমনভাবে উঠানামা করতে হবে, যেন সবসময় পাইপের মাথা কাষ্টিং এর মধ্যে ১ ফুট ঢুকে থাকে। (Design অনুযায়ী)

১৬) মিক্সার মেশিনের সাহায্যে ১:১.৫:৩ অনুপাতে (Design অনুযায়ী) ষ্টোন চিপস বা সিংগেলস দ্বারা মসলা তৈরী করে ট্রিমি পাইপের মাথায় ফানেলের উপর ঢালতে হবে।

১৭) কাট-অফ লেভেল অংশটুকু ফলস ঢালাই করতে হবে, এবং ১:২:৪ অনুপাতে কাষ্টিং করতে হবে।

১৮) বেইজমেন্টের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট লেভেল পর্যন্ত ঢালাই করার পর উপরের বাকী অংশ বালু ফিলিং করতে হবে।

১৯) কেসিং পাইপের উপরে যখন সিমেন্ট এবং ষ্টোন অথবা স্কাম দেখা যাবে তখনই কাষ্টিং বন্ধ করে দিতে

২০) উপরের নিয়মে প্রত্যেকটি পাইলের কাষ্টিং সম্পন্ন করতে হবে। মনে রাখতে হবে পাশাপাশি পাইল পর পর করা যাবে না। Layout অনুযায়ী পাইলের কাজ শুরু করার পূর্বেই পর্যায়ক্রমে পহিলের ক্রমিক নং দিয়ে কাজ শুরু করতে হবে। একটি পাইল হতে আর একটি পাইলের বোরিং এর দূরত্ব কম পক্ষে ১০ ফুট হতে হবে, বেশী হলে আরোও ভালো হয়। একই Cap এর Pile হলে সর্বনিম্ন 48 ঘন্টা সময় দিতে হবে। স্ট্রাকচারাল ডিজাইন অনুযায়ী পাইলের নাম্বার সহ বুঝে নিতে হবে।


ভিত্তি বা ফাউন্ডেশন কি? বিল্ডিং ফাউন্ডেশন কত প্রকার ও কি কি? বিস্তারিত তথ্য


পাইলিং (Piling) এর কাজে বাস্তব সমস্যা ও সমাধান

সমস্যা-০১
অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে পাইলের পয়েন্ট সরে গেলে 

সমাধান-০১
যদি ২” বা ৩” সরে যায়, তাহলে পাইল ক্যাপ বড় করে সমন্বয় করতে হবে।
যদি ৬ বা ১ফুট সরে যায় তাহা হলে রি-ডিজাইন করে পাইল ক্যাপ কাষ্টিং করতে হবে।

সমস্যা-০২
অসচেতনতার কারণে পাইলের মধ্যে ফাকা রয়ে গেলে 

সমাধান-০২
কাষ্টিং এর সময় ভালভাবে লক্ষ্য রাখতে হবে ট্রিমি পাইপ যেন কাষ্টিং এর উপরে না উঠে আসে। পাইল ক্যাপের সময় এরূপ সমস্যা দেখা গেলে ভেঙ্গে পূণরায় কাষ্টিং করতে হবে।

সমস্যা-০৩
ক্যাভিং হওয়ার দরুন চারিদিক থেকে ভেঙ্গে মাটি পাইলের গর্ত বড় হয়ে গেলে 

সমাধান-০৩
ক্যামিক্যাল ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন- বেন্টোনাইট (bentonite) বা গোবর বা এটেল মাটি। বেশী মাত্রায় ভেঙ্গে গেলে বোরিং বন্ধ রেখে উহা ভরাট করার কিছুদিন পর কাজটি করতে হবে অথবা পাশাপাশি দুইটি পাইল কাষ্টিং করতে হবে।

সমস্যা-০৪
পাইলের গর্তে মাটি ভেঙ্গে পড়ার কারণে রডের খাঁচা পুরোটা না ঢুকলে

সমাধান-০৪
খাঁচা উঠিয়ে ফেলতে হবে এবং পুনরায় বোরিং করতে হবে। পুনরায় খাঁচা ঢুকিয়ে ঢালাই করতে হবে। 

নোট: পাইলিং (Piling) এর কাজ চলাকালীন সময় এই সমস্ত সমস্যা দেখা দিলে স্ট্রাকচারাল ডিজাইনারের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। স্ট্রাকচারাল ডিজাইনার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিবেন। 

Google search engine

3 COMMENTS

  1. বাংলায় সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য খুব ভালো একটি ওয়েবসাইট হবে বলে আশা রাখি। অপেক্ষায় রয়েছি আরো ভালো ভালো আর্টিকেলের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here